Durga Pooja
সন্ধান

আরও প্রবন্ধ খবর

দেখুন:
  • এর পরেও কিছু প্রশ্ন কিন্তু থেকে গেল

    আনন্দবাজার - ৮ ঘন্টা আগে

    গত ১৫ এপ্রিল ন্যাশনাল লিগাল সার্ভিসেস অথরিটি (নালসা) বনাম ভারত সরকার মামলায় সুপ্রিম কোর্টের রায়টি শুধু ঐতিহাসিক নয়, বৈপ্লবিকও। রায়ের ভাষায়: ট্রান্সজেন্ডার মানুষদের অধিকার মানবাধিকার। রাষ্ট্র আইনি সুরক্ষা দেওয়ার মাধ্যমে এঁদের অধিকার বলবত্‌ করবে। শিক্ষায় ও চাকরিতে সংরক্ষণও এঁদের প্রাপ্য হবে। বিচারপতি রাধাকৃষ্ণনের রায়ে ইন্টারসেক্স ব্যক্তিরা ও হিজড়ারা-সহ ট্রান্সজেন্ডারের আওতায় পড়বেন সেই সব নারী-পুরুষও, যাঁরা রূপান্তরকামী, অর্থাত্‌ শারীরিক … আরও »এর পরেও কিছু প্রশ্ন কিন্তু থেকে গেল

  • বিশুদ্ধ নারী ও বিশুদ্ধ পুরুষের ছক ভেঙে

    আনন্দবাজার - ৮ ঘন্টা আগে

    সুপ্রিম কোর্টের একটি যুগান্তকারী রায় আমাদের বাংলা নববর্ষ উদ্যাপনে এক অন্য মাত্রা এনে দিয়েছে। ট্রান্সজেন্ডার বা রূপান্তরকামী মানুষদের তৃতীয় জেন্ডার হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে এই রায়। সাধারণত রূপান্তরকামী সকল মানুষকেই আমরা জ্ঞানত বা অজ্ঞানত হিজড়াদের সঙ্গে একই গোষ্ঠীভুক্ত করে দেখতে অভ্যস্ত। কিন্তু সুপ্রিম কোর্ট বলেছেন যে, প্রত্যেক রূপান্তরকামী মানুষের, এমনকী হিজড়াদেরও, আত্ম-পরিচিতির স্বার্থে নিজস্ব জেন্ডার নির্বাচনের, নির্ধারণের স্বাধীনতা তার মৌলিক অধিকার। … আরও »বিশুদ্ধ নারী ও বিশুদ্ধ পুরুষের ছক ভেঙে

  • মোদী পার্টিটাকে মেরে ফেলছেন

    আনন্দবাজার - বুধ, ২৩ এপ্রিল, ২০১৪

    এ বারের ভোটটা খুব পেকে উঠেছে। ভোটে কী হবে সেই অনিশ্চয়তার কারণে নয়। বড় ভোটে একটু অনিশ্চয়তা তো স্বাভাবিক। পেকে উঠছে কৌশলের জটিলতার কারণে। কৌশলগুলো কি রাজনীতিগত, না নির্বাচনগত? বিজেপি শুরুই করেছিল কাউকে শ্বাস ফেলতে না দেওয়ার মতো একটা ঘূর্ণি তুলে। বিজেপি তো বেশ অনেক দিনের পার্টি— যদি জনসঙ্ঘের সঙ্গে তার নাড়ির যোগটাকে ধরা যায়। ধরা না গেলেও অনেক দিনেরই। এতটাই অনেক দিনের যে, ভারতের কয়েকটি অঞ্চলের কিছু বিশেষ জনসমষ্টির কাছে বিজেপি রাজনৈতিক … আরও »মোদী পার্টিটাকে মেরে ফেলছেন

  • বই নিয়ে এত আদিখ্যেতার কী আছে

    আনন্দবাজার - বুধ, ২৩ এপ্রিল, ২০১৪

    তেরো পার্বণে আর একটি নতুন পার্বণ এ বছর যুক্ত হল, বই-পার্বণ। বইমেলা নামে বই নিয়ে একটি বিস্তর বাড়াবাড়ি প্রতি বছর সরকারি আনুকূল্যে ঘটে থাকে। সেটা মোটামুটি বাঙালির গা-সওয়া হয়ে গিয়েছে। কিন্তু সদ্য গোলদিঘিতে আতসবাজি সহকারে যে উৎসবটির সমাপন হল সেটিকে, এক কথায় বলা যায় এক ধরনের সুভাষণ। ঘরে চাল না থাকলে গৃহিণীরা বলে থাকেন চাল বাড়ন্ত। আজ, বিশ্ব বই দিবস উপলক্ষে এত কাল বইয়ের যে ‘গুদাম সাবাড় সেল’ আয়োজন করতেন পাবলিশার্স অ্যান্ড … আরও »বই নিয়ে এত আদিখ্যেতার কী আছে

  • কিন্তু এখন তো এত কথা বলা যাচ্ছে!

    আনন্দবাজার - মঙ্গল, ২২ এপ্রিল, ২০১৪

    আজকাল গণতন্ত্রের নাচ বলে একটা শব্দ শোনা যাচ্ছে। এর কোনও পারিভাষিক অর্থ আছে কি না, তা আমার মতো নানার্থবাদী মগজে প্রবেশ করে না। তবে এই ভোটের সময়েই গণতন্ত্রের প্রকৃত নাচ আরম্ভ হয়, এই নাচই শেষ পর্যন্ত কারও হাত-পা ভেঙে দেয়, আবার কাউকে বা পটীয়ান শিল্পীতে পরিণত করে। তবে একটা কথা মানতেই হবে। গণতন্ত্রের এই নাচ পশ্চিমবঙ্গে আগে বড় দেখিনি, শুধু এখনই দেখতে পাচ্ছি। মনে আছে, সিদ্ধার্থশঙ্করের আমলে এক বার ভোট হল, সেখানে কংগ্রেসের … আরও »কিন্তু এখন তো এত কথা বলা যাচ্ছে!

  • গরিবের চাহিদা এবং আমাদের গণতন্ত্র

    আনন্দবাজার - মঙ্গল, ২২ এপ্রিল, ২০১৪

    গত বছরের ১৪ জুলাই বাবাসাহেব অম্বেডকরের জন্মদিন উপলক্ষে সারা দেশে ছুটি ছিল। ইস্কুল-কলেজ, সরকারি আপিস-কাছারি, ব্যাঙ্ক-ডাকঘর সব বন্ধ। ভাবলাম, উপরি ছুটির দিনটা বেলা অব্দি ঘুম দেব। কিন্তু প্রতিদিনের মতো সেই সাড়ে ছ’টায় কলিং বেলের শব্দ জমাদার ময়লা নিতে এসেছে। ময়লার ব্যাগটা কোনও রকমে তুলে দিয়ে একটু চোখ বুঝেছি, আবার বেল। কাজের মাসি। দরজা খুলে দিয়ে আবার ঘুমোবার চেষ্টা, ফের টুংটাং, এ বার রান্নার মাসি। অর্থাৎ, ঘুমের দফারফা। বাড়িতে সারাইয়ের … আরও »গরিবের চাহিদা এবং আমাদের গণতন্ত্র

  • মন খারাপ হবে না?

    আনন্দবাজার - রবি, ২০ এপ্রিল, ২০১৪

    আর বেশি দিন থাকবেন না, গত কয়েক বছর ধরেই আঁচ করা যাচ্ছিল। ক্যান্সার, সঙ্গে স্মৃতিভ্রংশ। ২০০৫ সালে ‘মেমরিজ অব মাই মেলান্কলি হোরস’-এর পর একটি লাইনও লেখেননি। তিন খণ্ডে আত্মজীবনী ‘লিভিং টু টেল দ্য টেল’ লিখবেন ভেবেছিলেন। কিন্তু প্রথম খণ্ডের পর অসুস্থতা আর এগোতে দেয়নি তাঁকে। গাব্রিয়েল গার্সিয়া মার্কেসের কলম অনেক দিন আগেই থমকে গিয়েছিল, কিন্তু তবু আশ্বাস ছিল। আমাদের মধ্যেই তিনি আছেন। আরও »মন খারাপ হবে না?

  • মানুষকে কাছে টানার ত্রিশ বছর

    আনন্দবাজার - রবি, ২০ এপ্রিল, ২০১৪

    দেখতে দেখতে তিন দশক। উদ্যোগের। সাফল্যের। অহঙ্কার দেখানোর বা তৃপ্ত হওয়ার সময় নেই ওঁদের। যত এগিয়েছে, তত বেড়েছে দায়বদ্ধতার বৃত্তটি। মানুষ প্রতিদিন একটু একটু করে করে বাড়িয়ে চলেছে ওঁদের বৃত্তের বলয়টি। ওঁরাও মানুষকে টেনে নিয়েছেন। ওঁদের কাজে অনেকেই মজে রয়েছেন। অনেকেই  আন্তরিকতার সঙ্গে হাত বাড়িয়ে দিতে বাধ্য হয়েছেন। আরও »মানুষকে কাছে টানার ত্রিশ বছর

  • তবে কি মেয়েরা নিজেদের দল গড়বেন

    আনন্দবাজার - শনি, ১৯ এপ্রিল, ২০১৪

    ভারতের মেয়েরা নির্বাচনকে গুরুত্ব দিচ্ছেন। ১৯৬২ থেকে ২০১২ সালের ভোটদানের পরিসংখ্যান দেখাচ্ছে, যেখানে ১৯৬০-এর দশকে প্রতি ১০০০ পুরুষ ভোটদাতাপিছু ৭১৩ জন মেয়ে ভোট দিতেন, এখন তা হয়েছে হাজারে ৮৮৩। এমনকী পিছিয়ে পড়া বলে কুখ্যাত ‘বিমারু’ (বিহার, মধ্যপ্রদেশ, রাজস্থান, উত্তরপ্রদেশ) রাজ্যগুলিতেও সেই হার উল্লেখযোগ্য ভাবে বেড়েছে। ভোটদাতা হিসেবে সংখ্যায় মেয়েরা গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠছেন বলে কি রাজনীতির পরিসরে তাঁরা পৃথক গুরুত্ব পাচ্ছেন? মেয়েদের বিষয়গুলি … আরও »তবে কি মেয়েরা নিজেদের দল গড়বেন

  • সর্বনাশের চৌকাঠে দাঁড়িয়ে আমরা নীরব

    আনন্দবাজার - বৃহস্পতি, ১৭ এপ্রিল, ২০১৪

    দলে দলে লোক এলাকা ছেড়ে চলে যাচ্ছে, পায়ে হেঁটে। তাদের চার পাশে কাছে-দূরে সব জমি ধুলো-ভরা। অনেক দূরে বহুতল সব বাড়ি। ধুলো, ধুলো, নীরস নির্জল ধুলো। ঘাম নেই, জলের চিহ্ন নেই, মানুষদের পোশাকে ছাড়া কোথাও কোনও রং নেই। ফসল-খেত নেই, কারখানা বন্ধ হয়ে গেছে। পর পর তিন বছর বৃষ্টি নেই। তাপ বাড়ছে। আরও »সর্বনাশের চৌকাঠে দাঁড়িয়ে আমরা নীরব

  • এক শতাব্দী পরেও গোখলের দাবি অপূর্ণ

    আনন্দবাজার - বৃহস্পতি, ১৭ এপ্রিল, ২০১৪

    জনশিক্ষার ক্ষেত্রে (ভারত)রাষ্ট্রকে সেই দায়িত্ব নিতে হবে, যা অধিকাংশ সভ্য দেশের সরকার পালন করে চলেছে...।’ ১৮ মার্চ ১৯১০, ইম্পিরিয়াল লেজিসলেটিভ কাউন্সিলে বাধ্যতামূলক প্রাথমিক শিক্ষা আইনের দাবি তুলেছিলেন গোপালকৃষ্ণ গোখলে। হয়তো তিনি ভেবেছিলেন বিদেশি শাসনে নৈতিক দায়িত্বের মূল্য নেই, সুতরাং ‘লক্ষ লক্ষ শিশুর শিক্ষার অধিকার’টাকে আইন করেই প্রতিষ্ঠিত করতে হবে। হয়তো বা ভেবেছিলেন, স্বাধীনতার পরেও নেতারা ‘সভ্য দেশের’ নেতাদের মতো আচরণ না-ও করতে … আরও »এক শতাব্দী পরেও গোখলের দাবি অপূর্ণ

  • তৃতীয়ের সন্ধানে: ক্ষমতা, মমতা, না সমতা?

    আনন্দবাজার - বুধ, ১৬ এপ্রিল, ২০১৪

    দাদাঠাকুর (শরৎচন্দ্র পণ্ডিত) পালাকীর্তনের স্টাইলে ভোটের গান লিখেছিলেন। ‘আমি ভোটের লাগিয়া ভিখারী সাজিনু/ ফিরিনু গো দ্বারে দ্বারে।’ তাতে আবার আখর দিতে হত। ‘আমি ভিখারী না শিকারী গো!’ ‘আমি নেতা কি অভিনেতা, আহা মালুম করিবে কে তা?’ রোমান সেনেট থেকে ওয়াশিংটন ডিসি, তথা দিল্লির সংসদ ভবন পর্যন্ত সর্বত্রই, সর্বকালেই ভাল-মন্দ ব্যর্থ-সফল উদীয়মান-অস্তমান সব নেতাকেই অভিনয় করতে হয়। শুধু এই কারণে নয় যে, রাজনীতি করতে গেলে দরকার লজিক নয় রেটরিক, … আরও »তৃতীয়ের সন্ধানে: ক্ষমতা, মমতা, না সমতা?

  • বাংলার মুখ, মেধা আর ফ্রন্টাল ন্যুডিটি

    আনন্দবাজার - মঙ্গল, ১৫ এপ্রিল, ২০১৪

    বঙ্গ ললনাদের খয়েরি শরীর, সুডোল স্তন, ভরাট নিতম্ব এবং বুদ্ধিদীপ্ত ডাগর চোখের আবদনে কুপোকাৎ গোটা ভারত। বলিউড, কর্পোরেট সেক্টর থেকে শুরু করে মিডিয়া, এমনকী সোস্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটের ঘন ঘন লাইক আর শেয়ার এমনই এক চিত্র তুলে ধরছে বার বার। হালফিলে একটি ব্লগে প্রকাশিত পোস্টে বঙ্গ তনয়াদের পছন্দ করার বারোটি কারণও দর্শানো হয়েছে। উল্লেখযোগ্য ভাবে এই কারণগুলিতে যত না তাদের মুখশ্রী বা তনুশ্রীর প্রশংসা, তার চেয়ে বেশি বাঙালি মেয়েদের বুদ্ধিমত্তার … আরও »বাংলার মুখ, মেধা আর ফ্রন্টাল ন্যুডিটি

  • কেবল মৃতদেহে হাত দিয়ে বসে থাকা

    আনন্দবাজার - মঙ্গল, ১৫ এপ্রিল, ২০১৪

    লিট্ল, তা সে যতই লিট্ল হোক, বড় তারে বলে গাঁয়ের লোক। তার নাকি লিট্লতাতেই আনন্দ। আরে, ‘লিট্ল বয়’ তো আর সত্যি সত্যি পুঁচকে ছোঁড়া নয়, পারমাণবিক বোমা। লিট্ল ম্যাগাজিনও, বৃহৎ বপুদের মাটি ধরিয়ে ফটাফট মাথার ওপর তুলে ফেলছে পেল্লাই ওজন। তাই বলে শুধু বিষয়-বৈচিত্রে ওজনদার হলেই পত্রিকা লিট্ল ম্যাগাজিন হয় না, জাফরান ছাড়া যেমন বিরিয়ানি বরবাদ, প্রতিবাদ ছাড়া লিট্ল ম্যাগাজিনও তাই। সাহিত্যকে টিভি সিরিয়ালতুল্য তরল বানিয়ে যারা বহু পাঠককে হাত করতে … আরও »কেবল মৃতদেহে হাত দিয়ে বসে থাকা

  • এই উৎসব হোক বৃহৎ বাঙালির

    আনন্দবাজার - মঙ্গল, ১৫ এপ্রিল, ২০১৪

    চৈত্র সেল, শিবের গাজন, চড়ক পুজো, ধর্ম পুজো, নীলের উপোস কয়েক দিনের মধ্যে শেষ করতে করতেই পয়লা বৈশাখ। নতুন জামা, সকাল সকাল স্নান, রবীন্দ্রসংগীত, পাড়ার ক্লাবে, অ্যাপার্টমেন্টে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। আরও এক বার বাঙালির নামে জয়জয়কার, নিজেদের আবিষ্কার, গদগদ হয়ে ওঠা, কে কত বড় বাঙালি, গভীর বাঙালি ইত্যাদি বোঝার চেষ্টা করা। কিন্তু বাঙালি হয়ে ওঠার শর্ত কী? বাংলা ভাষা জানা বা জন্মসূত্রে বাংলা ভাষার সঙ্গে যোগাযোগ থাকা, এই তো জনপ্রিয় চিন্তায় আমরা … আরও »এই উৎসব হোক বৃহৎ বাঙালির

  • সাংসদ ট্রেনিং পাশ?

    আনন্দবাজার - রবি, ১৩ এপ্রিল, ২০১৪

    কলেজে পড়ার সময় আমিও সিনেমার হিরো হতে চাইতাম। না, মুম্বই পাড়ি দিতে চাইনি, বাংলার সিনেমারই হিরো হতে পারি মনে মনে ভাবতাম। বাংলায় হিরোর তখন বেশ মন্দা। মহানায়ক চলে গেছেন এক দশক হল। তাপস পাল পড়তি, প্রসেনজিত্‌ উঠতি, বাকিটা ফাঁকা। অতএব, আয়নাকে রোজ জিজ্ঞেস করতাম, আমিই কি নতুন হিরো? স্কুল কলেজে বেশ কিছু নাটক করেছি, এমনকী আজকের বিখ্যাত কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায়ের সঙ্গে এক মঞ্চে। এই সম্বলটুকু নিয়ে নানান দরজায় কড়া নাড়তে বেরিয়ে পড়লাম। কোনও … আরও »সাংসদ ট্রেনিং পাশ?

  • স্কুলে কল থেকে জল পড়ে!

    আনন্দবাজার - রবি, ১৩ এপ্রিল, ২০১৪

    দেবীপুর করুণাময়ী বালিকা বিদ্যায়তন। কলকাতা থেকে মাত্র পঁচাশি কিলোমিটার দূরে। দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার কুলতলি ব্লকের একটি মেয়েদের স্কুল। প্রায় ছ’শোর ওপর ছাত্রী। এমনকী চৌত্রিশ জন আদিবাসী ছাত্রী স্কুলের হস্টেলে থেকে পড়াশোনা করে। ক্লাস ফাইভ থেকে টেন অবধি স্কুলের ফলও খারাপ নয়। তো, এই স্কুলে গত ২৭ মার্চ সাজ সাজ রব। স্কুল কম্পাউন্ডের মাঝের চত্বরে বড় প্যান্ডেল। মঞ্চে মাইক, ফুল, সামনে সারি সারি চেয়ার, পাশে রান্নাবান্নার আয়োজন। দিনটা ঐতিহাসিক, … আরও »স্কুলে কল থেকে জল পড়ে!

  • ভারসাম্য রেখে চলাই আসল কথা

    আনন্দবাজার - শুক্র, ১১ এপ্রিল, ২০১৪

    অর্থনীতির গবেষণায় একটা বড় বিষয় হল শাসনব্যবস্থার পরিচালনা, যাকে গভর্নেন্স বলা হয়। শাসনব্যবস্থা কেবল সরকারি নয়, বেসরকারিও হতে পারে। এর সঙ্গে জড়িয়ে থাকে বিশেষ কোনও পদ্ধতি বা প্রক্রিয়া। এই পদ্ধতি ঠিক কেমন হবে, সেটা কোনও বইয়ে লেখা থাকে না। অনেক কিছুর মধ্যে দিয়েই সেটা নির্ধারণ করতে হয় পারিপার্শ্বিকতা, পদ্ধতি ব্যবহারের সমস্যা, সমর্থক এবং প্রতিবাদী বিভিন্ন গোষ্ঠীর মধ্যে ভারসাম্য। সব মিলিয়ে ধীরে ধীরে এগোতে হয়, কিছু ক্ষেত্রে তাত্‌ক্ষণিক … আরও »ভারসাম্য রেখে চলাই আসল কথা

  • করবেট পার্কেও ভোট আসে এবং যায়

    আনন্দবাজার - বৃহস্পতি, ১০ এপ্রিল, ২০১৪

    শুনেছিলাম উত্তরাখণ্ডের জিম করবেট ন্যাশনাল পার্কে গেলে নাকি বহু জন্তুর দেখা মেলে। বরাত ভাল থাকলে এমনকী বাঘেরও। ভোরবেলা খোলা জিপের ‘সাফারি’ নিয়ে উত্তেজনা তুঙ্গে ছিল। আমডান্ডা গেট ধরে জিপ কিছু দূর এগোতেই এক দল মানুষের দেখা। হাতে কাঠকুটো জড়ো করে ফিরছেন তাঁরা। বৃদ্ধও যেমন রয়েছেন, রয়েছে দুধের শিশু কোলে কিশোরী মা-ও। গাইড দীবান সিংহ জানালেন, এঁরা এই জঙ্গলেরই বাসিন্দা। আরও »করবেট পার্কেও ভোট আসে এবং যায়

  • কে কোথায় আসছেন, যাচ্ছেন, কেনই বা

    আনন্দবাজার - বৃহস্পতি, ১০ এপ্রিল, ২০১৪

    ১৯৫২ থেকে পর পর নির্বাচনগুলোতে ব্যক্তি-নেতা-দলের অবস্থান, প্রচারের বিষয়-কৌশল, ভোটারকে টানা ইত্যাদিতে ক্রমাগত বিবর্তন এসেছে। সূচনাপর্বে দলগুলোর মতবাদকেন্দ্রিক দ্বন্দ্ব নিয়ে প্রচারের ধারায় জনমনে দল ও নেতা সম্পর্কে একটা মতাদর্শ-ভিত্তিক ভাবমূর্তি তৈরি হত। আয়ারাম-গয়ারামের দলে নাম লেখানোর ঘটনা ছিল বিরল, এবং তেমন আচরণকে জনগণ বিশ্বাসঘাতকতা বলে মনে করতেন। তার পরে ক্রমশ যুগ বদলেছে। কিন্তু এবারকার নির্বাচনে দলবদলের যে হিড়িক ও … আরও »কে কোথায় আসছেন, যাচ্ছেন, কেনই বা

  • ইউ পি এ’র ব্যর্থতা ক্রমশই স্পষ্ট হয়েছে

    আনন্দবাজার - বুধ, ৯ এপ্রিল, ২০১৪

    ইউ পি এ’র দ্বিতীয় দফায় অর্থনীতির হাল নিয়ে অনেক কথা হচ্ছে। আলোচনার প্রথম এবং প্রধান বিষয় স্বভাবতই আয়বৃদ্ধি। প্রথম ইউ পি এ সরকার কাজ শুরু করার ঠিক আগে, ২০০৩-০৪ সালে ভারতে প্রকৃত জিডিপি’র বার্ষিক বৃদ্ধির হার ছিল ৮ শতাংশ। ২০০৫-০৬ থেকে ২০০৭-০৮, এই তিন বছরে সেই হার ৯ শতাংশ ছাড়িয়ে যায়। এখন, ২০১৩-১৪ সালে আয়বৃদ্ধির হার দাঁড়িয়েছে ৪. ... আরও »ইউ পি এ’র ব্যর্থতা ক্রমশই স্পষ্ট হয়েছে

  • মনোরোগী বলে সন্তান কেড়ে নেবেন না

    আনন্দবাজার - বুধ, ৯ এপ্রিল, ২০১৪

    মানসিক রোগী, এই অজুহাতে সম্প্রতি পাভলভ মানসিক হাসপাতালের বাসিন্দা মল্লিকা চক্রবর্তীর সদ্যোজাত শিশুটিকে সরিয়ে দেওয়া হল অন্যত্র। বাড়ির ঠিকানা বলতে না পারায় রাস্তা থেকে অন্তঃসত্ত্বা মল্লিকাকে পাভলভে ভর্তি করে গিয়েছিল পুলিশ। চিত্তরঞ্জন মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে মল্লিকার ছেলে জন্মায়। কিন্তু মল্লিকার ঠিকানা যে পাভলভ, তাই তিনি অন্য নবজননীদের থেকে আলাদা! নতুন মায়েরা বাচ্চা নিয়ে বাড়ি যান। মল্লিকাকে এক বোঝা দুঃখ নিয়ে ফিরতে হয় মানসিক হাসপাতালে। আরও »মনোরোগী বলে সন্তান কেড়ে নেবেন না

  • সম্মতির অধিকার মেয়েদের প্রাপ্য নয়?

    আনন্দবাজার - মঙ্গল, ৮ এপ্রিল, ২০১৪

    সবচেয়ে আগে জানতেই হবে কাকে বলে সম্মতি বের্টোল্ট ব্রেশট, যে বলে হ্যাঁ, যে বলে না সিপিএমের এ বারের নির্বাচনী ইস্তাহারের ১৭ নম্বর পাতায় একটি বাক্যবন্ধের দিকে চোখ গেল। জমি অধিগ্রহণ সম্পর্কে নিজেদের অবস্থান ব্যাখ্যা করে সেখানে বলা হয়েছে, আগে থেকে সব তথ্য জেনে বুঝে পূর্ণ সম্মতি (ফুল অ্যান্ড প্রায়র ইনফর্মড কনসেন্ট) ছাড়া জমি অধিগ্রহণ সমর্থনযোগ্য নয়। আরও »সম্মতির অধিকার মেয়েদের প্রাপ্য নয়?

  • ধর্ষণের শাস্তি মানেই ফাঁসি কেন

    আনন্দবাজার - মঙ্গল, ৮ এপ্রিল, ২০১৪

    দ্রুত বিচার চাই, দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই, ফাঁসি চাই: শক্তি মিলস-এর চিত্রসাংবাদিক ও টেলিফোন অপারেটরের তিন ধর্ষণকারীর মৃত্যুদণ্ডের রায়ে উদ্বেল সমাজের এই সব দাবিই একত্রে পূরণ হল। মুম্বই মেয়েদের জন্য নিরাপদ নয় এই কলঙ্ক মুছতে সরকার কতটা তৎপর, মেয়েদের কাজের, পড়াশোনার অধিকারের সঙ্গে তাদের আনন্দ-স্ফূর্তির অধিকারেও সমতা আনার জন্য কী পদক্ষেপ জরুরি, এই মামলার তদন্ত ও বিচার সেটা কিছুটা হলেও প্রতিষ্ঠা করতে পেরেছে। দিল্লির ঘটনার মতোই … আরও »ধর্ষণের শাস্তি মানেই ফাঁসি কেন

  • এক ঘাটে

    আনন্দবাজার - রবি, ৬ এপ্রিল, ২০১৪

    উত্‌পল দত্তের টিনের তলোয়ার নাটকের সেই লোকটির কথা মনে আছে? ভাঙা ভাঙা গলায় কথা বলে। উচ্চারণের কোনও ঠিকঠিকানা নেই। সে কলকাতার তলায় থাকে। লোকটির সঙ্গে এক দিন হঠাত্‌ নাটকের দলের  কাপ্তেনবাবু, বেণীমাধব চাটুজ্যের রাতের বেলায় দেখা বিশেষ মানুষজনের  সংস্কৃতির রসদদার বেণীমাধব, অভিনয়ের দাপটে  বাংলার গ্যারিক। কাপ্তেনবাবু সুযোগ পেয়েই এই পড়াশোনা না জানা নিচু জাতের মানুষটিকে খানিক মধুসূদন শুনিয়ে দিলেন। এক নিঃশ্বাসে অমিত্রাক্ষরে লেখা মেঘনাদবধ কাব্য, কী … আরও »এক ঘাটে

পৃষ্ঠা ক্রমসজ্জা

(890 স্টোরি)